বিডি বায়ান্ন নিউজ

পটুয়াখালীর চাঞ্চল্যকর মনির হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন।পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গাবালী থানাধীন বড়বাইশদিয়া ইউনয়িনের টুঙ্গিবাড়ীয়া গ্রামের বাসিন্দা মোসলেম সিকদারের ছেলে মনির সিকদার (৪২)। পেশায় মুদি দোকানদার।, গ্রাম-কাটাখালী। গত ১৪ই মে রাত অনুমানিক ১১:১৫ ঘটিকায় নিজ বাড়ী থেকে প্রতিদিনের ন্যায় রাতের খাবার শেষে দোকানে ঘুমানোর উদ্দেশ্যে বের হয়ে যায়। রাত অনুমান ১১:৩০ ঘটিকায় রাঙ্গাবালী থানাধীন টুঙ্গিবাড়ীয়া সাকিনস্থ কাটাখালী এ হাকিম মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন জনৈক জাফর আকন এর বাড়ীর দক্ষিন পাশে কাঁচা রাস্তার উপর পৌঁছাইলে অজ্ঞাতনামা দুস্কৃতিকারীরা মনির সিকদারকে ধারালো অস্ত্র দ্বারা এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করে পালিয়ে যায়।

মোঃ মনির সিকদারকে তার আত্মীয়-স্বজন কলাপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষনা করেন। এ সংক্রান্তে তার পিতা মোঃ মোছলেম সিকদার (৬৫) রাঙ্গাবালী থানায় লিখিত অভিযোগের দায়ের করেন ।মোছলেম সিকদার এর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাঙ্গাবালী থানার মামলা নং-১০, তারিখ-১৫-০৫-২০২১ খ্রি: ধারা-৩০২/৩৪ পেনাল কোড রুজু করা হয়।

এই খুনের ঘটনা সংগঠিত হওয়ার পরপরই জনাব মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ পিপিএম, পুলিশ সুপার পটুয়াখালী মহোদয়ের নির্দেশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কলাপাড়া সার্কেল) এর নেতৃত্বে রাঙ্গাবালী থানা পুলিশের একটি চৌকস টিমকে ঘটনাস্থলে প্রেরণ করেন। ঘটনা সংগঠিত হওয়ার ৪৮ ঘন্টার মধ্যে উক্ত টিম ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন এবং আসামী চিহ্নিত করতে সক্ষম হয়।

রাঙ্গাবালী থানার টুঙ্গিবাড়ীয়া গ্ৰমের মৃত হানিফ আকন এর ছেলে জাকির আকন (৩৮) দলবল নিয়ে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করে।আসামী মোঃ জাকির আকনের স্ত্রী মোসাঃ নাছিমা বেগমের সাথে ভিকটিম মোঃ মনির সিকদার এর পরকীয়া প্রেমের জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিতিভাবে অন্যান্য আসামীদের সহায়তায় ভিকটিম মোঃ মনির সিকদারকে খুন করেছে মর্মে প্রাথমিক তদন্তে প্রতিয়মান হয়েছে। প্রধান আসামি জাকিরা আকনকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এই ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের প্রচষ্টো অব্যাহত রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here